মাইক্রো টিচিং ম্যাথোডস, সেসান- 02 [প্রশাসন শাখার কার্মক্রম- সমন্বয়সাধন "COORDINATION"]

একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে ব্যবস্থাপনা করার কাজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ব্যবস্থাপনার অনেকগুলো ধাপ রয়েছে। এদের মধ্যে একটি ধাপ হচ্ছে সমন্বয়-সাধন (কো-অর্ডিনেশন)। সমন্বয় সাধনের কাজটি এ্যাডমিন বা প্রশাসনিক অফিসকেই দেখভাল করতে হয়। তাই একজন প্রশাসনিক অফিসার বা যেই শিক্ষক এর দায়িত্বে থাকবেন তাকে অনেক সুন্দরভাবে এই সমন্বয়ের কাজটি সম্পাদন করতে হয়।



পুরো আর্টিকেলটি ডাউনলোড করুন ... পিডিএফ



যখনই কোন সিদ্ধান্ত হয় যেখানে অভিভাবকদের সেবা প্রদানের বিষয়টি জড়িত থাকে, তখনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেকগুলো শাখাকে রেডি রাখতে হয়। তাই একজন প্রতিষ্ঠান প্রধান যখনই কোন সিদ্ধান্ত প্রদান করেন, তা বাস্তবায়নের জন্য প্রশাসনিক দায়িত্বে নিয়োজিত শিক্ষককে অনেকগুলো কাজ করতে হয়। এর সাথে জড়িত সকল শাখাকে রেডি করতে হয়। তাদেরকে নিয়ে মিটিং করতে হয়। তাদেরকে বুঝাতে হয়। তাদের কার্যক্রম ও করণীয় বুঝিয়ে দিতে হয়।

সকল শাখাকে এক সাথে রেডি করতে না পারলে একটি পূর্ণাংগ সেবা প্রদান করা সম্ভব হয়না। তাই, সকল শাখাকে নিয়ে আলাদা আলাদা সভা করা আবশ্যক।


যেমন ধরা যাক,- একটি প্রোগ্রাম হচ্ছে "অভিভাবকদের সাপ্তাহিক শিট প্রভাইড করা" সেদিন সকাল ১০.০টার সময় অভিভাবকদের প্রতিষ্ঠানে আসার কথা।


সেক্ষেত্রে নিম্নোক্ত শাখাগুলোকে রেডি রাখতে হবে;  
০১। সিকিউরিটি গার্ডকে জানাতে হবে, যাতে সে প্রস্তুত হয়ে পূর্বেই গেট প্রস্তুত রাখে; 
০২। ক্লিনিং সেকশানকে পূর্বেই সব জানাতে হবে, যাতে তারা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখে। 
০৩। একাউন্টস সেকশানকে পুর্বে জানাতে হবে, এবং তাদেরকে প্রশিক্ষণ প্রদান করতে হবে। 
০৪। কম্পিউটার সেকশানকে প্রস্তুত থাকতে হবে যাতে তারা কম্পিউটার এর কাজের জন্য প্রস্তুত থাকে।
০৫। ফটোকপি সেকশানকে প্রস্তুত রাখতে হবে ফটোকপির জন্য।
০৬। প্রতিটি শাখা সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, কর্ড বা সহকারি কর্ডদের প্রস্তুত থাকতে হবে।  

একজন অফিসারের প্রস্তুত থাকতে হলে যা করণীয়ঃ



1. অবশ্যই সকল সেকশানের দায়িত্ব প্রাপ্তদের গোসল করে রেডি হয়ে আসতে হবে;
2. নির্ধারিত সময়ের ১ ঘন্টা পূর্বেই ঘুম থেকে উঠতে হবে;
3. সেদিন প্রয়োজনে সবাই পূর্বেই সকালের নাস্তা করে নেবে; বাবুর্চি রান্না শেষ করতে না পারলে প্রয়োজনে সবাই যাতে বিস্কিট বা শুকনা খাবার খেয়ে রেডি হয়ে আসে সেটি প্রশিক্ষণ দিতে হবে/ নিশ্চিত করতে হবে। 
 
4. এ্যাডমিন শাখার দায়িত্ব নিয়োজিত শিক্ষক বা ব্যক্তি প্রিন্সিপ্যাল যে সময়ে আসার কথা সে সময়ে তাকে রিসিভ করবে; 
5. সবাই কমপক্ষে ১৫মিনিট পূর্বে এসে স্ব স্ব ডেস্কে আসন গ্রহণ করবেন এবং নির্ধারিত সেবা প্রদানের জন্য প্রস্তুত থাকবে;
6. যেখানে থেকে সেবা প্রদান করা হবে, তাদেরকে কাজটি বুঝিয়ে দিতে হবে। প্রয়োজনে তাদেরকে প্রশিক্ষণ দিতে হবে; 
7. সকল শাখার সবাইকে নিয়ে সভা করতে হবে, যাতে সবাই নিজের দায়িত্ব বুঝতে পারে, এবং প্রয়োজনে একে অপরকে সহায়তা করতে পারে। 

রেডি থাকার ক্রনোলজি


সেবা প্রদান শুরু হবে- সকাল ৯.০টায় 
সকল শাখা রেডি হবে সকাল ৮.০টায়
যিনি সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকবেন, তিনি রেডি হবেন সকাল ৭.৩০ টায়। তবে তিনি সকাল ৬.০ টার সময় সকলকে ম্যাসেজ দেবেন যাতে কেউ ভুল করে ঘুমিয়ে না থাকেন, অথবা কেউ হঠাত অসুস্থ হয়ে পড়লে তার পরিবর্তে অন্য কাউকে দায়িত্ব প্রদান করা যায়।   
 

যেসব ম্যাটেরিয়ালস প্রয়োজন হবেঃ


· ফটোকপি বা প্রিন্টিং এর জন্য পর্যাপ্ত কাগজ আছে কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে।
· পর্যাপ্ত প্যাকেট আছে কিনা, 
· পর্যাপ্ত স্যানিটাইজার আছে কিনা তা নিশ্চিত করতে হবে; 
· ফটোকপি, প্রিন্টার, এর কালি, টোনার, ড্রাম ঠিক আছে কিনা তা নিশিচত করতে হবে;
· প্যাকেট, খাম, ব্যাগ, সিল-প্যাড, স্ট্যাপল, স্ট্যাপলার পিন, ইত্যাদি আছি কিনা;
· যে রেজিস্টারে সব কিছু লিপিবদ্ধ করা হবে সেটি রেডি কিনা; 
· রেজিস্টারের একটি ছক টানা আছে কিনা;  

এ সকল কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করা গেলে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানসম্পন্ন সার্ভিস দেয়া সম্ভব হয়। তাই, একটি সেবা প্রদানের জন্য কোন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হলে তা বাস্তবায়নের জন্য প্রশাসন শাখাকে অনেক কৌশল ও কার্যক্রম গ্রহণ করতে হয়। আর এজন্য প্রয়োজন হয় সকলের নিবিড় পরিশ্রম।


ধন্যবাদ।

Recent Posts

See All

মিটিং সিদ্ধান্তগ্রহণ ও বাস্তবায়নঃ কিভাবে একটি কার্যকর ও স্মার্ট সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হয়? (পর্ব-০২)

একটি কার্যকর মিটিং বা সভা শেষ হয় এক বা একাধিক কার্যকর সিদ্ধান্ত গ্রহণের মাধ্যমে। একটি কার্যকর সিদ্ধান্ত কে বাস্তবায়ন করতে হলে সেই সিদ্ধান্তের কিছু আবশ্যক বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান থাকা চাই যাতে সেগুলো বাস্তব

Theme Song_ISC
00:00 / 03:15